রমজান মাসে ডায়াবেটিক রোগীদের যে নিয়মগুলো মেনে চলা উচিত

by Virtunus Healthy Eating Tips
Health
Published: 2 months ago
|Updated: 2 months ago
previewImage

রমজান মাসে ডায়াবেটিস আক্রান্ত ব্যক্তিদের রোজা রাখার জন্য বিশেষ কিছু নির্দেশনা মেনে চলা জরুরী। সিয়াম সাধনের এই মাসে নিজেদের স্বাভাবিক খাদ্য, পানীয় বা ঔষধ গ্রহনের ব্যবস্থা থেকে যেহেতু বেশ অনেকখানি সরে আসতে হয় ডায়াবেটিস রোগীদের, তাই এ সময় চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী কিছু নির্দেশ পালন করা অত্যন্ত গুরুতবপূর্ন। নিচে চিকিৎসক এবং বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী ডায়াবেটিস রোগীদের রমজান মাসে সে নিয়মগুলো মেনে চলা উচিত বা যে কাজগুলো সম্পন্ন করা উচিত সে ব্যাপারে উল্লেখ করা হলোঃ

12

Tasks

১. রমজান মাস শুরুর কমপক্ষে ৯০ দিন আগে থেকে গ্লুকোজের মাত্রা পরীক্ষা করে চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করে রোজা রাখার প্রস্তুতি গ্রহন করুন।

Once

২. রোজা শুরুর আগে আপনার ওজন মেপে নিন এবং স্বাভাবিক দৈহিক ওজন ধরে রাখতে যে ধরনের খাদ্য গ্রহন এবং পরিশ্রম প্রয়োজন তার চার্ট প্রস্তুত করুন।

Once

৩. প্রয়োজন অনুযায়ী রমজানের প্রথম কয়েকদিন নির্ধারিত সময়ে ব্লাড শুগারের পরিমান মেপে যাচাই করুন আপনি রোজা রাখার জন্য দৈহিকভাবে প্রস্তুত আছেন কি না।

Once

৪. বেলা অনুযায়ী আপনার ঔষধ এবং খাদ্যের সমন্বয় সাধন করুন। ডায়াবেটিস রোগীদের যেহেতু বিকেলের দিকে সুগার কমে যাবার সম্ভবননা থাকে তাই কোন সময়ের ঔষধ কখন গ্রহন করলে এ ধরনের দূর্ঘটনা এড়িয়ে চলা যাবে সে ব্যাপারে আগে থেকেই ঠিক করে নিন।

Once

৫. চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আপনার সকালে নাস্তার আগে বা পরে খেতে বলা ডায়াবেটিসের ঔষধ ইফতারের সময় খাবার চেষ্টা করুন।

Daily 1x

৬. রাতে খাবার নির্দেশ দেয়া ডায়াবেটিসের ঔষধ ভোর বেলা অর্থাৎ সেহরির সময় খাবার পরিকল্পনা করুন।

Daily 1x

৭. ইফতার এমন সব খাদ্য দিয়ে সাজান যেগুলো সহজপাচ্য এবং শরীরের জন্য ভালো। যে সকল খাবারে অতিরিক্ত তেল, মসলা, চিনি ইত্যাদি রয়েছে সেগুলো এড়িয়ে চলুন।

Once

৮. আপনার ইফতারের তালিকায় অধিক পরিমান পানি এবং তরল পানীয় যুক্ত করুন। ইফতারের পরবর্তী সময়ে সেহরি পর্যন্ত পানিশূন্যতা এড়াতে পর্যাপ্ত পরিমান পানি পান করুন।

Daily 1x

৯. ফজরের আযানের পূর্বে অর্থাৎ সেহরির শেষ সময়ের দিকে খাদ্য গ্রহনের অভ্যাস করুন। এমনিতেই যেহেতু অনেক দীর্ঘ সময় খাদ্য, পানীয় ছাড়া থাকার প্রয়োজন হবে তাই সেহরি করবার ক্ষেত্রে সেটি যেন বেশি আগে করা সম্পন্ন না হয়ে যায় এ ব্যাপারে খেয়াল রাখুন।

Daily 1x

১০. আপনার রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা ৩.৯ এর নীচে থাকলে বা ১৬.৭ বা তার চেয়ে বেশি থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া রোজা পালন থেকে বিরত থাকুন।

Once

১১. ভোরে বা বিকেলে যাদের হাটার অভ্যাস এবং নির্দেশ রয়েছে তারা কোন সময় হাঁটবেন সে ব্যাপারে চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করে নিন।

Once

১২. রোজা রাখা অবস্থায় যতটা সম্ভব কম শারীরিক পরিশ্রম করুন এবং একান্ত প্রয়োজনীয় হলে সকালে বা ভোরে এ ধরনের কাজ করে নেয়ার চেষ্টা করুন।

Once

Tags
avatar
Virtunus Healthy Eating Tips

0 Comments

Looking forward to your feedback