যে ১৩টি উপায়ে হিংস্র প্রানীদের হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করবেন

by Shagor Chowdhury
Life Hack
Published: 8 months ago
|Updated: 8 months ago

যখন আপনি প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে জঙ্গলে বেড়াতে যান, সেখানে সব সময়ই আপনার হিংস্র প্রানীর দ্বারা আক্রান্ত হবার সম্ভবনা থেকে যায়। ব্যাপারটি সত্যি উদ্বেগজনক ! এখানে ১৩ ধরনের হিংস্র প্রানী থেকে আত্মরক্ষার ১৩টি কৌশল আমি সংক্ষেপে ব্যখ্যা করবো। চলুন দেখে নেয়া যাক সেই উপায়গুলোঃ

12

Tasks

১. হাঙ্গরঃ যদি আপনি মানুষখেকো হাঙ্গরের সামনে পড়ে যান তাহলে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন যাতে পানিতে আপনার রক্ত বা মুত্র কোনোভাবেই না মিশে। ধীরে ধীরে হাঙ্গরের এলাকা থেকে সরে যাবার চেষ্টা করুন। যদি তারপরও আপনি হাঙ্গরের আক্রমণের শিকার হন, সে ক্ষেত্রে হাঙ্গরের চোখ অথবা গিল বা কানকো বরাবর আঘাত করুন।

Once

২. ক্যাঙ্গারুঃ যদি কোনোক্রমে আপনি ক্যাঙ্গুরদের অঞ্চলে চলে যান এবং তাদের দ্বারা আক্রান্ত হন তাহলে কাশতে শুরু করুন। এবং ধীরে ধীরে সে এলাকা থেকে বেরিয়ে আসুন।

Once

৩. সিংহঃ সিংহের সামনে পড়লে সরাসরি সিংহের চোখের দিকে তাকান এবং নিজেকে বিশাল আকারের প্রমান করার চেষ্টা করুন। সেই সাথে উচ্চস্বরে চিৎকার করুন এবং হুঙ্কার দিন।

Once

৪. হাতিঃ হাতির আক্রমণ থেকে বাঁচতে বড় আকারের কোনো পাথর বা গাছের পেছনে আশ্রয় নিন।

Once

৫. গণ্ডারঃ গণ্ডারের হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করার সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে, বড় কোনো গাছের পেছনে, ঝোপের আড়ালে অথবা লম্বা ঘাসের ভেতরে লুকিয়ে পরা।

Once

৬. জলহস্তীঃ যদি গরমকালে জলহস্তীর দ্বারা আক্রান্ত হন, সে ক্ষেত্রে ঝোপের আড়ালে লুকাবেন না। আক্রমন থেকে রক্ষা পেতে কোনো গাছে চড়ে বসুন বা খাড়া পাহাড় বেয়ে উপরে উঠে পড়ুন। এরপর যতক্ষণ পর্যন্ত না ক্ষান্ত হয়ে জলহস্তী চলে যায় ততক্ষন সেখানে অপেক্ষা করুন।

Once

৭. ষাঁড়ঃ যদি ষাঁড় আপনাকে তাড়া করে, তাহলে এক যায়গায় দাঁড়িয়ে যান এবং নিজের শার্ট বা টুপি খুলে ষাঁড়টির সামনে নাড়তে থাকুন। এরপর শার্ট বা টুপিটি যতটা সম্ভব দূরে ছুঁড়ে ফেলুন। ষাঁড়টি সে দিকে আকৃষ্ট হলে চুপচাপ সেখান থেকে সরে পরুন।

Once

৮. জেলিফিশঃ জেলিফিশ আপনাকে আক্রমন করলে, এমন একধনের নিউরোটক্সিন ছুঁড়ে দিবে যা আপনার শরীরে তীব্র যন্ত্রনার সৃষ্টি করবে। তাই জেলিফিশেদ্বারা আক্রান্ত হলে, প্রথমে আক্রান্ত অঙ্গ লবণ মিশ্রিত পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন এবং জেলিফিশের কোনো অংশ আপনার শরীরে আটকে থাকলে সেটি চিমটা দিয়ে তুলে ফেলুন।

Once

৯. কুমিরঃ আপনি কখনো কুমিরের আক্রমণের শিকার হলে, তাদের চোখে আঘাত করার চেষ্টা করুন। যদি কুমির আপনার দিকে এগিয়ে আসতে শুরু করে তাহলে যতটা জোরে সম্ভব শব্দ করতে থাকুন এবং একেবেকে দৌড়াতে থাকুন।

Once

১০. সাপঃ যদি কোনো সাপ আপনাকে অনুসরণ করতে থাকে, তাহলে পা দিয়ে মাটিতে যত জোরে সম্ভব কম্পন তৈরি করুন। সাপ যদি আপনাকে কামড় দেয়, তাহলে চুষে রক্ত বের না করে, প্রবাহমান জলধারায় আক্রান্ত স্থানটি ধুয়ে ফেলুন এবং ক্ষতস্থানে ট্যুরিনিকেট জাতীয় ব্যান্ডেজ লাগিয়ে নিন।

Once

১১. ভালুকঃ ভালুক আপনাকে আক্রমন করলে দৌড়াবেন না। নিজের ঘাড় ঢেকে মাটিতে কুন্ডুলী পাকিয়ে শুয়ে পরুন এবং মৃতের ভান করুন। ভালুক চলে যাওয়ার সাথে সাথে সে স্থান ত্যাগ না করে কিছুক্ষন অপেক্ষা করে সেখান থেকে সরে আসুন।

Once

১২. গোরিলাঃ গোরিলা আক্রমন করলে আতংকিত না হয়ে এক যায়গায় বসে পরুন, এবং নিজেকে গোরিলা থেকে ছোট আকারে নিয়ে আসুন। গোরিলার চোখের দিকে তাকাবেন না এবং গোরিলার আক্রমন ঠেকাতে মাটিতে কুন্ডুলী পাকিয়ে শুয়ে পরুন।

Once

Tags
avatar
Shagor Chowdhury

0 Comments

Looking forward to your feedback