জেনে নিন উত্তরবঙ্গের সেরা রেসিপি- কচু মুখি ইলিশ ঝোল

by রুমানার রান্নাবান্না
রুমানার রান্নাবান্না
রুমানার রান্নাবান্না

আমার রান্না শেখাই, দেখাই না 🙂

Singapore, Singapore

19Tips
6Likes
11Followers
Cooking
25 days ago

বাঙ্গালি মানেই ইলিশ মাছ। উত্তরবঙ্গের সর্বস্তরের মানুষ ইলিশ মাছ পছন্দ করে। অনেকেই ইলিশ মাছ অনেকভাবে রান্না করে থাকে। তারমাঝে উত্তরবঙ্গের অনেক জনপ্রিয় একটা রেসিপি হচ্ছে কচু মুখি ইলিশ। বিভিন্ন এলাকায় এই কচু মুখিকে বিভিন্ন নামে ডাকে।।কচু মুখী বাংলাদেশের অনেক স্থানে গুড়া কচু, কুড়ি কচু, ছড়া কচু, দুলি কচু, বিন্নি কচু, মুখি কচু নামেও পরিচিত। তাহলে ঝটপট দেখে নিন এই সুস্বাদু কচু মুখি ইলিশ তৈরির রেসিপি- মাছ প্রস্তুত করতে লাগছে - ১। ইলিশ মাছ ৪ টুকরো ২। হলুদের গুঁড়ি ০.২ চা চামচ ৩। শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামচ ৪। লবণ ১ চা চামচ রান্না করতে লাগছে - ১। কচু মুখি ১ কেজি ২। রান্নার তেল ০.২৫ কাপ ৩। পিঁয়াজ কুচি ১ কাপ ৪। শুকনো মরিচের গুঁড়ি ২ চা চামচ ৫। হলুদের গুঁড়ি ০.৫ চা চামচ ৬। ধনে গুঁড়ি ১ চা চামচ ৭। জিরা গুঁড়ি ১ চা চামচ ৮। লবণ ১ চা চামচ ৯। কাঁচা মরিচ ৭/৮ টি

12

Tasks

১। যেহেতু মাছগুলো ভেজে রান্না করতে হবে, তাই প্রথমেই মাছগুলোকে মেরিনেট করে নিন। একটি পাত্রে এক চা চামচ লবণ, আধা চা চামচ হলুদের গুড়া আর ১ চা চামচ মরিচের গুড়া নিন। মসলাগুলো ভালো করে মিক্স করে নিন তারপর মসলাগুলো মাছ এর গায়ে ভালো করে মাখিয়ে দিন।

Once

২। মাছগুলো মেরিনেট হতে দিয়ে মশালার একটি মিক্স তৈরি করে নিন। ২ চা চামচ শুকনা মরিচের গুড়া,১ চামচ ধনে গুড়া, আধা চামচ জিরা গুড়া এবং আধা চা চামচ হলুদ গুড়া নিন। এরপর আধা কাপ পানি দিয়ে মসলাগুলো ভালো করে মিক্স করে নিন। এভাবে পানি দিয়ে মসলা মিক্স করে নিলে ভালো ফ্লেভার পাওয়া যায়।

Once

৩। এরপর কচুগুলোকে ছিলে নিন। কচু নাড়াচাড়া করার ১০ মিনিট আগে হাতে একটু তেল মাখিয়ে নিন,তাহলে হাত আর চুলকাবেনা।

Once

৪। কচু ছিলার পরে মোটা মোটা ফালি করে কেটে নিন। কচুগুলো ছিলার সাথে সাথে পানিতে ডুবিয়ে দিন নাহলে কচু কালো হয়ে যায়। কচু ছিলার সাথে সাথেই রান্না করার চেষ্টা করুন।

Once

৫। ভাজা আর রান্নাহবে একবারে তাই একটি প্যানে কোয়ার্টার কাপ রান্নার তেল দিয়ে একটু ভালো করে গরম করে নিয়ে মেরিনেট করে রাখা মাছগুলো দিয়ে দিন।

Once

৬। মিডিয়াম আঁচে মাছগুলো হাল্কা করে দেড় মিনিট ভেজে নিন। মাছ ভাজা হয়ে গেলে একটি পাত্রে তুলে রাখুন।

Once

৭। এরপর চুলার আঁচ বাড়িয়ে দিয়ে পিঁয়াজ কুচি দিয়ে দিন। পিঁয়াজ যখন লালচে হয়ে যাবে, তখন পানিতে গুলিয়ে রাখা মসলাগুলো ঢেলে দিন। ভালো করে মিক্স করে নিন। এরপর আধা কাপ পানি দিয়ে প্যানটা ঢেকে দিন। পানি একটু শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

Once

৮। তারপর ফালি করে রাখা কচু গুলো দিয়ে দিন। ১চা চামচ লবন দিয়ে ভালো করে একটু মিক্স করে নিন। কচুগুলোকে মসলার সাথে ২-৩ মিনিট কষিয়ে নিন।

Once

৯। কষানো হয়ে গেলে,কচু গুলোর মাঝে ২কাপ গরম পানি দিয়ে ঢেকে দিন। এই পানিতেই কচু নরম আবার ঝোলও হয়ে যাবে। মাঝে মাঝে ঢাকনা খুলে নেড়ে দিন। ঝোল আরও বেশি করতে চাইলে পানি যোগ করতে পারেন নিজের ইচ্ছামত।

Once

১০। কচু নরম হয়ে গেলে ভেজে রাখা মাছগুলো ঝোলের মাঝে দিয়ে দিন। মাছগুলো ঝোলের নিচে ডুবিয়ে দিন। এতে করে মাছের ভিতর তরকারির ফ্লেভার ভালভাবে ঢুকে যাবে। আবার মাছের ফ্লেভারটাও তরকারির সাথে মিশে যাবে।

Once

১১। ফ্লেভারটাকে আরও বাড়ানোর জন্য যোগ করে দিন ৭-৮টা গোটা কাচামরিচ। এবার চুলোর আঁচ কমিয়ে দিয়ে রান্না করুন ১০ মিনিট। এই ১০ মিনিটেই মাছ, মসলা একসাথে ভালোভাবে মিশে যাবে আর খুব সুন্দর একটা ঘ্রাণ বের হবে।

Once

১২। ১০ মিনিট হয়ে গেলে চুলা বন্ধ করে দিন। তারপর গরম গরম পরিবেশন করুন।

Once

Tags
avatar
রুমানার রান্নাবান্না

0 Comments

Looking forward to your feedback